Monday , 23 October 2017
advertise
সর্বশেষ
তোপ থেকে বাঁচতে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর ‘জামায়াত ফরমুলা’!         ইতালীয় তরুণীকে বাঁচিয়ে বিশ্ব মিডিয়ায় এক বাংলাদেশি         ‘ইক্বামাতে দ্বীন’র বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক প্রপাগান্ডার আসল রহস্য !         রাস্তায় প্রসব ও নবজাতকের মৃত্যু হাসপাতালে, সেবা না পাওয়া অন্ত:স্বত্ত্বা নারীকে কেন ক্ষতিপূরণ নয় : হাইকোর্ট         এস কে সিনহা ও সরকার, কে কী হারাল         বড়লেখার মাদ্রাসা ছাত্রী তামান্না স্কলারশীপ পেলেন পোল্যান্ডের পুজানা ভার্সিটির         ফাঁসির দড়ি থেকে রাজনীতির মাঠে         মিয়ানমারে ২৮ টি গণকবর উদ্ধার         বার্মিজ সেনাদের ধর্ষণের শিকার নারীরা কাঁদছেন নীরবে গুমরে         প্রশ্নবানে জর্জরিত পাশা: অনেক প্রশ্নেরই উত্তর মেলেনি সংবাদ সম্মেলনে        
মিয়ানমারে ২৮ টি গণকবর উদ্ধার

মিয়ানমারে ২৮ টি গণকবর উদ্ধার

দ্যা বিএনএনঃ  রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে দুই ভাগে বিভক্ত আন্তর্জাতিক রাজনীতি। কূটনৈতিক স্তরে নানা তর্ক বিতর্ক চলছে। তারইমধ্যে বিধ্বস্ত রাখিন প্রদেশে ২৮টি গণকবরের হদিশ পেল মিয়ানমার সেনা।

মৃতদের মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে। সকলেই হিন্দু। চরমপন্থী রোহিঙ্গা জঙ্গিরাই নাকি তাদের খুন করেছে!‌ আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি–কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিযোগ সুচি সরকারের মুখপাত্র জ হতের।তবে সাম্প্রতিক দাঙ্গা চলাকালীন তাদের খুন করা হয়েছে কিনা তা নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। মিয়ানমার সেনাপ্রধানের ওয়েবসাইটেও গণকবর উদ্ধারের সত্যতা মেনে নেওয়া হয়েছে। একটি বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে, ‘‌রাখিন প্রদেশের ২৮টি হিন্দুর খবর উদ্ধার করেছে নিরাপত্তাবাহিনী।

আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি তাদের নৃশংসভাবে খুন করেছে।’‌

আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এএফপি সূত্রে জানা গিয়েছে, রাখিন প্রদেশের উত্তরে ইয়ে ব কিয়া গ্রামের বাইরে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছিল সেনাবাহিনী।
সেই সময় পচা গন্ধ পান জওয়ানরা। মাটি খুঁড়লে ২০ জন মহিলার দেহ উদ্ধার হয়। মেলে ১০ বছরের কম বয়সী ৬ বালক সহ ৮ পুরুষের দেহও।
বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ রাখিন প্রদেশের উত্তরের ইয়ে ব কিয়ায় হিন্দু এবং মুসলিম দুই সম্প্রদায়েরই বাস। দীর্ঘদিন ধরেই তাদের মধ্যে বিরোধ। তবে সম্প্রতি তা চরমে ওঠে।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ‘‌২৫ অগাস্ট আচমকাই গ্রামের মধ্যে ঢুকে পড়ে একদল জঙ্গি। তাদের হাতে লাঠি ও ধারাল ছুরি ছিল। যাকে সামনে পাচ্ছিল কোপাচ্ছিল। অনেককে জঙ্গলেও টেনে নিয়ে যায়। জঙ্গিরা একাধিক হিন্দু মহিলাকে অপহরণ করেছে বলেও অভিযোগ উঠে আসছে। তারমধ্যে হিন্দু গণকবর উদ্ধারের খবরে পরিস্থিতি আরও তেতে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা।
মিয়ানমার সরকারের নিপীড়ন এবং বৈষম্যের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন রোহিঙ্গা মুসলিমরা। সরকারি অত্যাচারের শিকার হয়ে গত বছর প্রায় ১১ লক্ষ মানুষ রাখিন প্রদেশে ছেড়ে পালিয়ে যান। গত ২৫ অগাস্ট থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন ৪ লক্ষের বেশি মানুষ। সুত্রঃ দেশ জনতা ।