Monday , 23 October 2017
advertise
সর্বশেষ
তোপ থেকে বাঁচতে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর ‘জামায়াত ফরমুলা’!         ইতালীয় তরুণীকে বাঁচিয়ে বিশ্ব মিডিয়ায় এক বাংলাদেশি         ‘ইক্বামাতে দ্বীন’র বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক প্রপাগান্ডার আসল রহস্য !         রাস্তায় প্রসব ও নবজাতকের মৃত্যু হাসপাতালে, সেবা না পাওয়া অন্ত:স্বত্ত্বা নারীকে কেন ক্ষতিপূরণ নয় : হাইকোর্ট         এস কে সিনহা ও সরকার, কে কী হারাল         বড়লেখার মাদ্রাসা ছাত্রী তামান্না স্কলারশীপ পেলেন পোল্যান্ডের পুজানা ভার্সিটির         ফাঁসির দড়ি থেকে রাজনীতির মাঠে         মিয়ানমারে ২৮ টি গণকবর উদ্ধার         বার্মিজ সেনাদের ধর্ষণের শিকার নারীরা কাঁদছেন নীরবে গুমরে         প্রশ্নবানে জর্জরিত পাশা: অনেক প্রশ্নেরই উত্তর মেলেনি সংবাদ সম্মেলনে        
কানাইঘাটে সাবেক শিবির নেতা ইয়াহইয়ার বাড়িতে পুলিশের অভিযান

কানাইঘাটে সাবেক শিবির নেতা ইয়াহইয়ার বাড়িতে পুলিশের অভিযান

দ্যা বিএনএন:  ইসলামী ছাত্র শিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক আবু সালেহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়াকে আটক করতে গত বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে কানাইঘাটের রাজাগঞ্জ ইউনিয়নের তালাবাড়ী পূর্ব গ্রামে তার নিজের বাড়িতে অভিযান চালায় কানাইঘাট থানা পুলিশ। কানাইঘাট থানার এসআই আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার তার বাড়িতে পুলিশী অভিযান হয়েছে বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসী।

অভিযান প্রসঙ্গে কানাইঘাট থানা পুলিশের সহকারী পরির্দশক আব্দুল মান্নান বলেন, “আমরা গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি যে শিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা ইয়াহইয়া এলাকায় এসেছেন। তিনি অসংখ্য মামলার পলাতক আসামী। পলাতাক অবস্থায় থেকেও তিনি বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট থাকায় তাকে পুলিশ খোঁজতেছে বহুদিন থেকে। তাকে আটক করতেই আমরা অভিযান পরিচালনা করেছিলাম। কিন্তু আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে তিনি পালিয়ে গেছেন ।”

ইয়াহইয়ার বোন সাজিদা আক্তার জানান, “আমরা সবাই বসে গল্প করছিলাম। হঠাৎ করে পুলিশ অস্ত্রসস্ত্রসহ আমদের বাড়ি ঘেরাও করে ইয়াহইয়াকে খোঁজতে থাকে। এ সময় আমরা ভয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ি।”

উল্লেখ্য, শিবিরের সাবেক নেতা আবু সালেহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া দীর্ঘ সময় শিবিরের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে ২০১৫ সালে ছাত্ররাজনীতি থেকে অবসর নেন। ছাত্ররাজনীতিতে থাকতে ২০১৩ সালে তিনি সাত মাস কারাবরণ করেন। কারাবরণের আগে তিনি বেশ কিছু দিন নিখোঁজ ছিলেন। পুলিশ রিমান্ডে অতিরিক্ত টর্চারের ফলে তিনি এখন স্বভাবিক জীবন যাপন করতে পারছেন না বলে জানান তার আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী।